চেতনা ও অন্যান্য ॥ মউ সুমাত্রা


চেতনা

এই নবান্নে
একটা কুয়াশার ভোর
দেবো তোমায় উপহার

ফোঁটা ফোঁটা শিশির কণায়
থাকবে অধিকার তোমার
ফুটবে যত শিউলি শেফালি
ঝরবে বকুল
সবই তোমার

আছি বিভোর
মাধবীলতার ঘ্রাণে
কতবার
নিয়েছো আমায় ভাসিয়ে।


উপ-যাপন

এই যে বললে, জানো?
একসাথে থাকলেই কী আর মন জানা হয়
এ আমার বড্ড বিস্ময়।

যৌথ জীবনেও থাকে
ব্যক্তিগত মেঘ, টুকরো টুকরো আবেগ
পাহাড়সম হাহাকার

জেনেছো কখনো?
তার কাছে ভাবনাটা এমন- আহা, ঝামেলা ভীষণ
কাছের মানুষটাও পড়শি তখন

অথচ কেউ জানলোই না …


জন্ম যার পঁচিশে বৈশাখে

আমাদের শোবার ঘরের
জানালাটা
খুলতেই চোখ পড়লো
খুব সাধারণ একটা মুখ
অথচ অসাধারণ!

কী যেনো ভালোলাগা
মিশে আছে
শাদা দাড়ি- গোঁফের
মুখটাতে।

ইচ্ছে করলেই ছোঁয়া যায় না
চাইলে ধরা দেয় না
অনেকটা চাঁদের মতো
যার সাথে
কল্পনার রাজ্যে
যাওয়া যায় হারিয়ে।